যুক্তরাষ্ট্রে খোলা কন্সার্টে ‘গণহারে গুলি হামলা ভয়াবহ ১১ ঘটনা ।

0
4

লাস ভেগাসে কনসার্টে গুলি করে ৫৯ জনকে হত্যা করা হয়েছে রোববার রাতে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ৫২০ জন।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৫ বছরে এ রকম ‘গুলি করে হত্যা’র ভয়াবহ ১১টি ঘটনা ঘটেছে। নিচে ঘটনাগুলো তুলে ধরা হল । 

১৯৯১:  কিলিন
ওই বছরের অক্টোবরে কিলিনে একটি রেস্তোরাঁয় এক ব্যক্তি গুলি চালিয়ে ২২ জনকে হত্যা করার পর নিজেও আত্মহত্যা করে।

১৯৯৯: কলোরাডো

ওই বছর এপ্রিলে কলোরাডোর লিটলটন শহরের কলোম্বাইন হাইস্কুলে দুই কিশোর শিক্ষার্থী ১২ সহপাঠী এবং এক শিক্ষককে গুলি করে হত্যা করে। পরে নিজেরাও আত্মহত্যা করে।

২০০৭: ভার্জিনিয়া

ওই বছরের এপ্রিলে ব্ল্যাকসবার্গে ভার্জিনিয়া প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কোরীয় বংশোদ্ভূত ২৩ বছর বয়সী এক ছাত্র গুলি করে ২৭ শিক্ষার্থী ও ৫ শিক্ষককে হত্যা করে। পরে সেও আত্মহত্যা করে।

২০০৯: বিংহ্যামটন

নিউইয়র্কের বিংহ্যামটনে ২০০৯ সালের এপ্রিলে একটি সিভিক সেন্টারে ঢুকে গুলি চালায় ভিয়েতনামের এক অভিবাসী। পরে আত্মহত্যা করা ওই ব্যক্তির গুলিতে নিহত হন ১৩ জন।Image result for যুক্তরাষ্ট্রের কনসার্টে গুলি করে ৫৯ জনকে হত্যা
২০০৯: কিলিন সেনাঘাঁটি

সে বছরের নভেম্বরে কিলিনে নিজের সামরিক ঘাঁটিতে এক মার্কিন সেনা মনস্তত্ত্ববিদ গুলি করে ১৩ জনকে হত্যা করে। গুলিতে আহত হয় আরও ৪২ জন। পরে পুলিশ তাকে আটক করে।

২০১২: অরোরা

সে বছরের জুলাইয়ে গভীর রাতে অরোরার এক সিনেমা হলে ‘ব্যাটম্যান’ চলচ্চিত্রের প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হচ্ছিল। সেই সময় এক তরুণ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি চালায় এবং কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। ঘটনাস্থলে মারা যান ১২ জন। আহত হন  ৭০ জন৷ হামলাকারী এখন যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ভোগ করছে।

২০১২: কানেকটিকাট

ডিসেম্বরে কানেকটিকাটের নিউটাউনে ২০ বছর বয়সী এক তরুণ নিজের মাকে গুলি করে হত্যা করে। মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন তরুণটি তার মাকে হত্যা করার আগে স্যান্ডি হুক এলিমেন্টারি স্কুলে গুলি চালিয়ে ছয়-সাত বছরের ২০ শিক্ষার্থী এবং ৬ শিক্ষককে হত্যা করে। পরে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় সে।

২০১৩: ওয়াশিংটন

ওই বছরের সেপ্টেম্বরে ওয়াশিংটন নৌবাহিনীর সদর দফতরে  ঢুকে সাবেক এক কর্মী এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। এতে নিহত হন ১২ জন। পরে সেখানকার অফিসারদের গুলিতে নিহত হন তিনি।

২০১৫: স্যান বার্নাডিনো

ওই বছরের ডিসেম্বরে নববিবাহিত এক মুসলিম দম্পতি স্যান বার্নাডিনোর একটি অফিসের ক্রিসমাস পার্টিতে গিয়ে গুলি করে ১৪ জনকে হত্যা করে। গুলিবিদ্ধ হন আরও ২২ জন। পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হয় ওই দম্পতি।

২০১৬: অরল্যান্ডো

ফ্লোরিডা রাজ্যের অরল্যান্ডো শহরে ওই বছরের ১২ জুন সমকামীদের নৈশক্লাবে ঢুকে গুলি চালিয়ে ৪৯ জনকে হত্যার ঘটনায় স্তব্ধ হয়ে যায় পুরো বিশ্ব। অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এক বন্দুকধারী সেখানে গুলি চালায়। পুলিশের গুলিতে পরে নিহত হয় সে। তথাকথিত ইসলামি জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস এ হত্যায় দায় স্বীকার করেছিল।

২০১৭: লাস ভেগাসে সংগীত উৎসবে গুলি

স্থানীয় সময় ১ অক্টোবর মাঝ রাতে লাস ভেগাসে কান্ট্রি মিউজিক উৎসব চলার সময় বন্দুকধারীর গুলিতে ৫০ জনেরও বেশি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন ২০০ জনেরও বেশি মানুষ।

সূত্রঃ আমাদের সময় । 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here